fbpx

হেপাটাইটিস সি এর ভাইরাস আবিষ্কার করে নোবেল পেলেন তিন বিজ্ঞানী

nobel in medicine
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on pinterest
Pinterest
Share on tumblr
Tumblr

হেপাটাইটিস সি ভাইরাস আবিষ্কারের সূত্রে চিকিৎসায় নোবেল এ বার অলটার-সহ তিন জনের। বাকি দু’জন হলেন মাইকেল হাওটন ও চার্লস এম রাইস। নোবেল কমিটি জানিয়েছে, পুরস্কারের ১ কোটি সুইডিশ ক্রোনার (১১.১৮ লক্ষ ডলারের বেশি) সমান ভাবে ভাগ হবে তিন জনের মধ্যে।

একটা সময় ছিল, যখন হেপাটাইটিস এ এবং হেপাটাইটিস বি-এর খোঁজ মিলেছে। প্রথমটি জলবাহিত ভাইরাস। দ্বিতীয়টির বাস রক্তে। এ দু’টিকে চিহ্নিত করার পরীক্ষাও হাতে এসে গিয়েছে। কিন্তু এর পরেও অনেকের ক্রনিক হেপাটাইটিস ও তার জেরে লিভার সিরোসিসের কোনও ব্যাখ্যা পাচ্ছিলেন না বিজ্ঞানীরা। সে সময়েই অজানা এক ভাইরাসের সন্ধান চালান অলটাররা। 

EduKare Online 1

লিভারের নানা সমস্যা তৈরি করা হেপাটাইটিস এ ভাইরাসের সন্ধান মিলেছিল গত শতকের চল্লিশের দশকে। ষাটের দশকে বিজ্ঞানী বারুচ ব্লুমবার্গ আবিষ্কার করেন হেপাটাইটিস বি। দেখান রক্তবাহিত এই ভাইরাসের সংক্রমণ আরও মারাত্মক ও তার থেকে লিভার সিরোসিস ও লিভার ক্যানসার হতে পারে। তার জন্য ১৯৭৬ সালে নোবেল পুরস্কার পান তিনি। সেই একই গোত্রের, ফ্ল্যাভিভাইরাস পরিবারের আরও একটি আরএনএ ভাইরাসের সন্ধান দেন অলটার, হাওটন ও রাইস। এখন যাকে হেপাটাইটিস সি বলা হয়। এর খোঁজ পাওয়ায় সঠিক চিকিৎসার পথ পেয়েছেন ডাক্তারেরা। বাঁচানো গিয়েছে লক্ষ লক্ষ রোগীকে।            

হেপাটাইটিসের আক্রমণ থেকে অবশ্য মুক্তি মেলেনি এখনও। এখনও প্রতি বছর এই রোগে বিশ্বের ৭ কোটি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন, মৃত্যু হচ্ছে ৪ লক্ষের। তবে ক্রনিক হেপাটাইটিসের কারণ জানা, হেপাটাইটিস সি সংক্রমণ চিহ্নিত করার জন্য রক্ত পরীক্ষা এবং সম্ভাব্য ওষুধ আবিষ্কারের ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত খুলে দিয়েছে অলটারদের আবিষ্কার। অলটার জানিয়েছিলেন, অনেকের ক্রনিক হেপাটাইটিসের পিছনে রয়েছে অভিন্ন একটি অজানা ভাইরাস। হাওটন সেই ভাইরাসের জিনোমকে আলাদা করার পথ দেখান। রাইস দেখান, অন্য কোনও কারণ ছাড়া, এই নতুন ভাইরাসটি একাই হেপাটাইটিস ঘটাতে পারে।      

Please Share this page

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on pinterest
Pinterest
Share on tumblr
Tumblr
Share on facebook
Share on twitter
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on linkedin
Share on email

Your Comment